সারারাত ঘুমাননি প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক এই আমার দেশ দৈনিক এই আমার দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর চকবাজারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের খবর শোনামাত্রই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ উদ্যোগে ঘটনার খোঁজখবর নেয়া শুরু করেন। এসময় তাকে খুব চিন্তিত ও বিমর্ষ দেখা যায়। সারারাত তিনি ঘুমাতে পারেননি। তিনি সার্বক্ষণিকভাবে উদ্ধার অভিযান পরোক্ষভাবে তদারকি করেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন।

বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে চুড়িহাট্টা মোড়ে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় এ তথ্য জানান সাঈদ খোকন। মেয়র জানান, মোট ৭০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত হয়েছে ৪১ জন যাদের মধ্যে ৩২ জন ঢাকা মেডিকেলসহ বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। বাকি ৯ জন ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি রয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়। এই ঘটনায় আরও অন্তত ১৬ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবকরা

বুধবার রাত ১০টা ১০ মিনিটে চকবাজারের নন্দ কুমার দত্ত রোডের ওয়াহিদ ম্যানশন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূ্র্তেই আগুন চারটি ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিট প্রায় ১৪ ঘণ্টার নিরন্তর চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে ১ লাখ এবং আহতদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে শ্রম মন্ত্রণালয়।

আহতদের বিনামূল্যে চিকিৎসার ঘোষণা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এছাড়াও নিহতদের দাফনের জন্য ১০ লাখ এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ টাকা বরাদ্দের ঘোষণা দিয়েছে ত্রাণ মন্ত্রণালয়।