সাতক্ষীরায় পূর্ব শত্রুতার জেরে দুর্বত্তের হামলায় আহত ১

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার পারকুখরালীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে নুর হামজা সাজু (১৯) নামে একজনকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। সে সাতক্ষীরার পারকুখরালী গ্রামের মোঃ ফজলুল হকের পুত্র। বর্তমানে সে আশংকাজনক অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ সময় আসামীরা সাজুর কাছ থেকে ১টি স্যামসং মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ হামলার ঘটনায় নুর হামজা সাজুর পিতা মোঃ ফজলুল হক ৬ জনকে আসামী করে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলায় আসামীগণ হচ্ছে – ১) আল আমিন (২২), পিতা-আব্দুল আলিম, সাং- কুখরালী, ২) আরিফুল রহমান (২৪), পিতা- তারু গাজী , সাং- ইটাগাছা পুলিশ ফাঁড়ির পিছনে,৩) আশানুর (২২), সাং- কুখরালী,৪) মানিক(২১), সাং- আমতলার মোড়, ৫) এনামুল(২২), সাং – কুখরালী, ৬) আরিফ (১৪), পিতা- ফারুক, সাং- গড়ের কান্দা( খাল পাড়)। জানা যায়, মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে কুখরালীর আল-আমিনের নেতৃত্বে ১০ -১৫ জনের সশস্ত্র বাহিনী সাজুর উপর হত্যার উদ্দেশ্যে অতর্কিত আক্রমন চালায়। এ সময় আল আমিনের নির্দেশে আসামি আরিফুল রহমান নুর হামজা (সাজু)’র পেটে ধারালো ছোরা দিয়ে তার তলপেটের ডানপাশে ও ডান পাজড়ের নিচে ছুরি দিয়ে আঘাত করে তাকে মারাত্মকভাবে আহত করে । এবং অন্যান্য আসামিরা লোহার পাইপ, বাঁশের লাঠি ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে অমানবিকভাবে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে।সাজু আহত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ছটফট করতে থাকলে তার আত্ম-চিৎকারে গ্রামবাসীরা এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে এলাকাবাসীরা তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তারা অবসথা আশংকাজনক।