শেরপুরে ক্রেতা ও দর্শনার্থীর ভিড়ে জমে ওঠেছে বই মেলা

দৈনিক এই আমার দেশ দৈনিক এই আমার দেশ

তারিকুল ইসলাম, শেরপুর প্রতিনিধি : ‘পড়িলে বই আলোকিত হই, না পড়িলে বই অন্ধকারে রই’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে শেরপুর ডিসি উদ্যানে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে গত বৃহস্পতিবার শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী বই মেলা জমে ওঠেছে। প্রতিদিনই বাড়ছে দর্শনার্থী ও ক্রেতার ভিড়। বিশেষ করে গতকাল শনিবার ছুটির দিনে মেলা প্রাঙ্গণে বিপুলসংখ্যক দর্শনার্থীর ভিড় দেখা গেছে। ।

মেলায় অংশগ্রহনকারী দোকানী সুত্রে যানা গেছে, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচাসহ গল্প, উপন্যাস, কাব্যগ্রন্থ, ছড়া, সায়েন্স ফিকশন, ভ্রমণ কাহিনী ও খেলাধুলা নিয়ে রচিত দেশি-বিদেশি প্রায় ২০ হাজার বই দিয়ে মেলায় সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে ১৫টি প্রদর্শনী স্টল স্থাপন করা হয়েছে। এসব স্টলে পাঠক-ক্রেতারা বই দেখা ও স্বল্পমূল্যে বই কিনতে পারবেন।

গতকাল শনিবার দুপুরে মেলা প্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা যায়, বিপুলসংখ্যক নারী-পুরুষ-শিশু মেলায় এসেছেন। তাঁরা মেলায় স্থাপিত বিভিন্ন বইয়ের স্টল ঘুরে ঘুরে দেখছেন। অনেকে আবার বই কিনছেন। এ সময় মেলায় স্থাপিত আহম্মদীয়া লাইব্রেরীর স্টলে কথা হয় শেরপুর সরকারি মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী আমিনার সঙ্গে। তিনি বলেন, মেলায় প্রদর্শিত বইগুলো শহরে স্থাপিত দোকানের চাইতে অনেকটাই কম মূল্যে কেনা যাচ্ছে। তাই এখানে বই কিনতে বেশ ভাল লাগছে।

লাইব্রেরীর মালিকদের সাথে কথা হলে তারা আরও বলেন, তিনদিন আগে মেলা শুরু হয়েছে। কিন্তু শনিবার ছুটির দিনে বিপুলসংখ্যক দর্শনার্থী ও বইপ্রেমী মেলায় এসেছেন। তাঁর স্টলে বিক্রিও ভাল হচ্ছে। আগামিকাল সোমবার মেলা শেষ হবে।