মানিকগঞ্জে মাদক মামলায় ২ যুবকের যাবজ্জীবন


মানিকগঞ্জে মাদকদ্রব্য বিক্রি ও সংরক্ষণের দায়ে পৃথক দুটি মামলায় দুই যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার দুপুর ৩টার দিকে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শাহানা হক সিদ্দিকী এই রায় ঘোষণা করেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০০৯ সালের র‌্যাব-৪ কর্তৃক ঢাকা আরিচা মহাসড়কের মূলজান পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় ভাটবাউর গ্রামের আর্জুকে (৩৮) ৪০ বোতল ফেনসিডিল ও ৯০ পিস নেশা জাতীয় ইনজেকশনসহ আটক করে এবং মানিকগঞ্জ সদর থানায় মামলা করে।

পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে আসামি আর্জুর বিরুদ্ধে মাদক রাখা ও ব্যবসা করার বিষয়ে আদালতে ২০০৯ সালের ২৪ জানুয়ারি চার্জশিট দায়ের করে। পরে আদালত রবিবার আর্জুকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। একই সঙ্গে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাস কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

অপর আরেকটি মামলায় র‌্যাব-২ এর ডিএডি-২ মামলার বাদী লুৎফর রহমান ৭৫ বোতল ফেনসিডিলসহ পাবনার বেড়া উপজেলার বাগজান এলাকার আব্দুল মতিন প্রামানিকের ছেলে নূররুজ্জামানকে (৩৫) আরিচাঘাটস্থ এলাকা থেকে আটক করেন। পরে শিবালয় থানায় মাদকদব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন।

শিবালয় থানার পুলিশ তদন্ত শেষে আসামি মো. নূরুজ্জামানের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আদালতে চার্জশিট প্রদান করে। দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক নূরুজ্জামানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। একইসঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

সরকার পক্ষের মামলা পরিচালনা করেন এপিপি মথুর নাথ সরকার ও অতিরিক্ত পিপি নিরঞ্জন বসাক। আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রেজা।