ঢাকা মহিলা কলেজে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার একাডেমিক ভবন উদ্বোধন

রাজিবুল হক রনি ঃ রবিবার বিকাল ৪:০০ টায় ঢাকা মহিলা কলেজের নিজস্ব মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ম্যুরাল ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব একাডেমিক ভবন উদ্বোধন এবং এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অত্র কলেজের গভর্নিং বডির মাননীয় সভাপতি ও কাউন্সিলর, ১৫ নং ওয়ার্ড,ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এবং ধানমন্ডি থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব রফিকুল ইসলাম বাবলার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান, মাননীয় উপাচার্য, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রুহুল আমীন মজুমদার, ডাঃ মোঃ মনোয়ার হোসেন,মোঃ মোমেন সরকার ও রিয়াজ আহমেদ সদস্য, গভর্নিং বডি, ঢাকা মহিলা কলেজ৷ সভায় প্রধান অতিথি মহোদয় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর সোনার বাংলা তথা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য ছাত্রীদের সৎ, শিক্ষিত ও মেধাবী হয়ে দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার উপদেশ দেন।

নিয়মিত ক্লাস নেওয়া হচ্ছে কিনা এবং শিক্ষার্থীদের শতভাগ ক্লাসরুমে উপস্থিতি আছে কিনা সে বিষয়ে অধ্যক্ষকে জোর তাগিদ দেন। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, নিয়মিত ছয় থেকে আট ঘণ্টা পড়ার অভ্যাস করো। রেডক্রস, স্কাউটিং, বিতর্কসহ নানা দায়িত্ব ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকার জন্য শিক্ষার্থীদের নির্দেশ দেন। এবং ৫ জন দরিদ্র, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ফ্রি পড়াশোনার আশ্বাস দেন ও শিক্ষকবৃন্দদের ট্রেনিং এর ব্যবস্থা করারও আশ্বাস দেন।

শিক্ষকবৃন্দকে নতুন প্রজন্মের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ তুলে ধরার জোর তাগিদ দেন ।অনুষ্ঠানে সভাপতি মহোদয় শিক্ষার্থীদেরকে ২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নিজেদেরকে সুশিক্ষায় আলোকিত করতে হবে ও সেই সাথে তিনি নিজেদেরকে স্মার্ট সিটিজেন ও বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে দিক নির্দেশনা দেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেন কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মাইন উদ্দীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রুহুল আমীন মজুমদার, ডাঃ মোঃ মনোয়ার হোসেন ও মোঃ মোমেন সরকার সদস্য, গভর্নিং বড়ি, ঢাকা মহিলা কলেজ।

এছাড়াও বক্তব্য প্রদান করেন অত্র কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য এ এইচ মামুন-অর রশিদ, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেন বইয়ের প্রতি শিক্ষার্থীদের মনোযোগ বাড়াতে হবে। এতে পড়ালেখার কোন বিকল্প নেই। পাঠ্য পুস্তকের পাশাপাশি অন্যান্য বই পড়ারও আগ্রহ বাড়াতে হবে। দেশ প্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নিজেকে গড়ে তুলতে হবে।

প্রধান অতিথি কলেজের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। সভাপতি মহোদয় অনুষ্ঠান সফল ও স্বার্থক করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সভায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ই আগস্টের সকল শহীদ, জাতীয় চার নেতাসহ মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান, কলেজের জমি দাতা বেগম কুলসুম মজিদ, কলেজের প্রতিষ্ঠা সভাপতি লায়ন মরহুম হুমায়ুন জহীর, প্রয়াত অধ্যক্ষ, শিক্ষক কর্মচারীবৃন্দের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মাওলানা মুফতি মিজানুর রহমান খান।

স্কাউটের সমন্বয়ক ছিলেন এ বি এম জিয়াউল আহসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অত্র কলেজের পৌরনীতিও সুশাসন বিভাগের প্রভাষক তাহমিনা আক্তার।