বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা আমাকে ধর্ষণ করেছে (ভিডিও)

অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত মার্কিন সিনেটর মারথা ম্যাকস্যালি। ফাইল ছবি।
ডেস্ক রিপোর্ট : বিমান বাহিনীতে থাকার সময় সিনিয়র কর্মকর্তার দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন, মার্কিন সিনেটর মারথা ম্যাকস্যালি। প্রথম নারী পাইলট হিসেবে তিনি মার্কিন বিমান বাহিনীর হয়ে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। পরে সিনেটর হয়েছেন অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্য থেকে। বিবিসি, আল-জাজিরা।

বুধবার তিনি আরও জানান, ধর্ষণের শিকার হওয়ার বিষয়ে কথা বলতে যখন তিনি মার্কিন সামরিক কর্মকর্তাদের কাছে যান, তখন আরো বিরূপ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছিলেন তিনি। তার ভাষায়,‘ধর্ষণের বিষয়ে অভিযোগ জানাতে গিয়ে আমার মনে হল তাদের কাছে এ বিষয়টি খুবই স্বাভাবিক এবং সেখানে পরিবেশ এমন হলো যে, ধর্ষণের অভিযোগ করতে এসে আমি আবারো মানসিকভাবে ধর্ষণের শিকার হলাম।’

৫২ বছর বয়সী মার্কিন সিনেটর মারথা ম্যাকস্যালি একটানা ২৬ বছর মার্কিন বিমান বাহিনীতে চাকরি করেছেন এবং একটি ফাইটার স্কোয়াড্রনের কমান্ডার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। মার্কিন সামরিক বাহিনীতে যৌন নিপীড়নের বিষয়ে বুধবার দেশটির সিনেটের সাব-কমিটিতে শুনানীর সময় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন এই মার্কিন সিনেটর।

ম্যাকস্যালি বলেন,‘আমি নিজে সামরিক বাহিনীতে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছি। কিন্তু আরো অনেক নিপীড়িত কর্মীর মতো আমি এই নির্যাতনের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করতে পারিনি।’

তিনি আরো বলেন,‘ধর্ষণের শিকার হওয়ার পর অনেক নারী ও পুরুষের মতো আমি সামরিকবাহিনীর সিস্টেম বা পরিবেশের উপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলি। মতো হতো সিসটেমের দ্বারাই ধর্ষিত হয়েছি। আমি নিজেকেই অপরাধী বা দোষী মনে করতাম। ঘটনার পর সব কাজে আমি লজ্জিত ও দ্বিধান্বিত হয়ে পড়ি। আমি ভাবতাম আমার শক্তি আছে কিন্তু নিজেকে সবসময় অসহায় মনে হতো।’