বাড্ডায় হত্যা মামলার প্রধান আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর বাড্ডায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আলী হত্যা মামলার প্রধান আসামি রমজান (৩৭) ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

বাড্ডার সাঁতাকুল এলাকায় মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ডিবি পুলিশের সঙ্গে ওই ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

বাড্ডা থানার এসআই মো. আনাসউদ্দিন জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বাড্ডার সাঁতারকুল এলাকায় ইউনাইটেড বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে ডিবি পুলিশের সঙ্গে কয়েকজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীর গুলিবিনিময় হয়।

একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে গেলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে জানা যায় নিহতের নাম রমজান।

এদিকে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গুলিবিনিময়ের সময় ডিবি পুলিশের দুজন সদস্য আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি ও গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত রমজানের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

২০১৮ সালের ১৫ জুন রাজধানীর উত্তর বাড্ডার পূর্বাঞ্চল ১নং লেনসংলগ্ন বায়তুস সালাম জামে মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে আসা বাড্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেনকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

তখন পুলিশ জানায়, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বাড্ডা এলাকায় অটোরিকশা স্ট্যান্ড ও ডিশ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অবৈধ অর্থ আদায় এবং সেই অর্থ ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বিরোধে খুন হন ফরহাদ আলী।

ওই হত্যার পরিকল্পনা করেন বাড্ডার শীর্ষ সন্ত্রাসী রমজান, মেহেদী ওরফে কলিন্স ও আশিক। ওই হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই তারা সবাই বিদেশে পলাতক ছিলেন।