‘বন খেকো’ সেই ওসমানের ১২ বছরের কারাদণ্ড আপিলে বহাল

দৈনিক এই আমার দেশ দৈনিক এই আমার দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ‘বন খেকো’ বরখাস্তকৃত প্রধান বন সংরক্ষক ওসমান গনির ১২ বছেরের কারাদণ্ড বহলা রেখেছেন আপিল বিভাগ। আজ মঙ্গলবার আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বিভাগের বিচারপতির বেঞ্চ হাইকোর্ট বিভাগের রায় বহাল রেখেছেন।

২০১৫ সালের ১৫ ডিসেম্বর বিচারিক আদালতের ১২ বছরের কারাদণ্ড বহাল রাখেন হাইকোর্ট বিভাগ। পরে ঐ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন ওসমান গনি।

জানা গেছে, ২০০৮ সালের ৫ জুন ঢাকার বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ওসমান গণিকে দোষী সাব্যস্ত করে ১২ বছর ও তার স্ত্রী মোহসিনারা গনিকে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন। একই সঙ্গে আদালত ওসমান গনির নামে থাকা এক কোটি ৮০ লাখ ও স্ত্রীর নামে থাকা দুই কোটি ৮০ লাখ টাকা এবং ২৭০ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করেন।

উল্লেখ্য, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ওসমান গনির উত্তরার সরকারি বাসভবনে অভিযান চালিয়ে চালের ড্রাম, বালিশ ও তোশকের ভেতর থেকে এক কোটি ছয় লাখ ৮৪ হাজার ৬০০ টাকা উদ্ধার করে। তারা ৪১ লাখ ১১ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের সঞ্চয়পত্রের সন্ধানও পায়। এরপরই ওসমান গনিকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে একটি ব্যাংকের ধানমন্ডি শাখার লকার থেকে ২৯০ ভরি স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে মাত্র ২০ ভরি অলংকারের বৈধ কাগজপত্র ছিল।