নকল গোপনাঙ্গ লাগিয়ে জোচ্চুরি, শেষমেশ বিপাকে যুবক

দৈনিক এই আমার দেশ দৈনিক এই আমার দেশ

এই আমার দেশ ডেস্ক : দেখা যায়, ব্র্যাড কেবল মাত্র নকল পুরুষাঙ্গই লাগাননি, তিনি অন্য এক ব্যক্তির প্রস্রাবও বহন করছিলেন।

গোপনাঙ্গটাই নকল। তার উপরে অন্য এক ব্যক্তির প্রস্রাবের নমুনা সংগ্রহ করে বহন করছিলেন তিনি। ২০১৭-এই ধরা পড়েন ৪২ বছরের মার্কিন নাগরিক ব্র্যাড ক্যাটলিন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘নিউ ইয়র্ক পোস্ট’-এর প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ২০১৭ সালে তিনি ধরা পড়েন বেআইনি মারিজুয়ানা সেবনের জন্য। তাঁকে ড্রাগ টেস্টের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্রাব সংগ্রহে কারণে ওয়ারেন কাউন্টির এক পুলিশ অফিসার বাথরুমে নিয়ে যান। সেখানেই দেখা যায় ব্র্যাড কেবল মাত্র নকল পুরুষাঙ্গই লাগাননি, তিনি অন্য এক ব্যক্তির প্রস্রাবও বহন করছিলেন।

জালিয়াতি ও বিভ্রান্তকরণের অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা আনা হয়। অবশেষে গত বৃহস্পতিবার ব্র্যাডকে তিন বছরের কারাবাসের সাজা দিল আদালত।

ওয়ারেন কাউন্টি প্রোবেশন ডিরেক্টর রবার্ট লুসি জানিয়েছেন, নকল গোপনাঙ্গ ও অন্যের প্রস্রাব অনলাইনে কিনতে পাওয়া যায়। অনেক মাদকাসক্তই এগুলি ব্যবহার করে আইনের চোখ এড়াতে চান। কিন্তু ব্র্যাড আইনের নজর এড়াতে পারেননি। আপাতত তিনি শ্রীঘরে।