ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ প্রভাবে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুট স্থবির

হাসান চৌধুরী- (মানিকগঞ্জঃ) বুলবুলের প্রভাবে, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুট ২৪ ঘন্টা পর চলাচল শুরু মানিকগঞ্জ-রাজবাড়ী জেলার পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুট ঘুর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে প্রবান্বিত হয়ে স্থাবির হয়ে পড়েছে। পদ্মা যমুনায় নৌ-যান চলাচলে বন্ধ ঘোষণা হলে শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ফেরী ছাড়া অন্যান্য নৌযান চলাচল করেনী । এ রুটে ১৭ টি ছোট বড় ও মাঝারী ফেরী, ৩৪ টি লঞ্চ, ট্রলার, নৌকা যথারিতি চলাচল করে। এ দিকে বিআইডব্লিউটিসি আরিচা সেক্টরের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মোঃ জিল্লুর রহমান বলেন, আবহওয়ার সংবাদে আমরা সতর্কবস্থানে আছি ফেরি ও ঘাট ভালো অবস্থাতে আছে। বিআইডব্লিউটিসি’র পাটুরিয়া প্রান্তের সহকারী ঘাট ব্যবস্থাপক মহিউদ্দিন রাসেল জানান, ঘাটে দুরপাল্লার পরিবহন সহ সকল প্রকার যানবহন সংখ্যা খুব কম। সরেজমিনে আমাদের এ প্রতিনিধি হাসান চৌধুরী দেখেন, ঘাট এলাকায় মাঝারি গুড়ি গুড়ি ও থেমে থেমে ভারি বর্ষণের সঙ্গে দমকা হাওয়া প্রবাহিত হচ্ছে । নদীতে প্রবল ¯্রােত ও বাসাতে সৃষ্ট অশান্ত তরঙ্গ প্রবাহমান পাটুরিয়ার সব কয়টি ফেরী ঘাট ঠিক খাকলেও দৌলদিয়ায় ৬ টির মধ্যে ৪টি ঘাট সচল রয়েছে। বিআইডব্লিউটিসি বিআইডব্লিউটিএ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীদের পদচারনায় ঘাট এলাকায় ছিল অতিমাত্রায়। বিআইডব্লিউটিসি ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সভাপতি ফয়েজউল্লা সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, কেন্দ্রী য্গ্নু সম্পাদক রবিউল হাসান তাহেরী, সাংগঠনিক সাম্পাদক ইজ্জত আলি, সিনিয়র নেতা গোলাম মোস্তফা সহ সকলেই ঘাট এলাকায় অবস্থান করে যাত্রীদের জান মালের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ছিল । বৈরি আবহাওয়ায় ও প্রতিকুল পরিবেশে বেগতিক আবহাওয়ার কারণে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শনিাবার রাত ১০ টা থেকে রবিবার সকাল ০৯ টা পর্যন্ত ১১ ঘন্টা বন্ধ থাকার পর পুনরায় আবার দুপুর পৌনে ১২ টার পর ফেরী সার্ভিস বন্ধ হয়ে যায়। এই ভাবে বন্ধ চালু অবস্থায় গত ২ দিনে প্রায় ২৪ ঘন্টা ফেরী চলাচল বন্ধ ছিল বলে যানা যায়। রিপোট লোখা পর্যন্ত নৌরুটে এই ধরণের আচারণ ছিল। ঘাট ব্যবস্থাপক খন্দকার তানবির আহম্মেদ জানান পরিস্থিতি উন্নয় হলে যে কোন মুহুত্তে ফেরী পূণরায় চালু হয়ে যাবে। পদ্মার ঢেয়ের টোড়ো দৌলতদিয়া ঘাটে পরিস্থিতি আবার ভয়ানক আকার ধারণ করেছে। ঘূর্ণিঝর বুলবুল ধেয়ে আমার সংবাদে মোকাবেলায় দুর্যকব্যবস্থাপনায় কমিটি অন্যতম শিবলয় উপজেলা ইউনিয় ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষেনে ছিলেন। এ সংবাদ পাঠানো পর্যন্ত এ এলাকায় কোন ক্ষয় ক্ষতি সংবাদ পাওয়া যায় নি। সোমবার সকাল থেকে পাটুরিয়া-দৌলদিয়া ঘাট স্বাভাবিক এবং যানবাহন স্বল্পতার জন্য ঘাটে ঘাটে ফেরী অপেক্ষমান ছিল, বেলা সোয়া ১২ টার দিক থেকে পর্যায়ক্রমে যানবাহন আনাগোনা বাড়তে থাকে।