গাজীপুরে খুনের প্রধান আসামি আলোচিত রুনা গ্রেফতার

সংবাদদাতা : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ী এলাকার ব্যবসায়ী সবুজ পাঠান হত্যা মামলার প্রধান নারী আসামী রুনা আক্তারকে (২৮) গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার সকালে গাজীপুরের হরিনাচালা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে তুরাগ থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত রুনা আক্তার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বারেন্ডা গ্রামের সাত্তার মিয়ার স্ত্রী।

হত্যা মামলার প্রধান আসামি রুনা আক্তার

নিহত সবুজ পাঠানের স্ত্রী বাপ্পি আক্তার জানান, গাজীপুর সদরের কোনাবাড়ী এলাকার দুলাল মেম্বারের মেয়ে রুনা আক্তার ঢাকার তুরাগ থানা এলাকার আহালিয়া এলাকার ১০৯৮ বাসায় থাকেন। গত বছরের ৩০ আগস্ট রাত সাড়ে ৮টার দিকে সবুজ পাঠানের মোবাইলে ফোন করে তাকে বাসায় ডেকে নেয়। পরদিন ৩১ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোবাইল ফোনে রায়হান নামে একজন তাদের জানান, সবুজ গুরুতর অসুস্থ।

তিনি জানান, কোনাবাড়ী এলাকার দুলাল মেম্বারের মেয়ে রুনা আক্তার, আরাফাত, মফিজ উদ্দিন, সিয়াম ও আব্দুল সাত্তার নামের কয়েকজন মিলে সবুজ পাঠানের লাশ বড় বোন শাহিদার উত্তরার বাসা নিয়ে আসে। রুনাসহ তার স্বজনরা মিলে ৩০ আগস্ট রাতে পরিকল্পিকভাবে তাকে হত্যা করে।

এ ঘটনায় সবুজ পাঠানের স্ত্রী বাপ্পি আক্তার বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তুরাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত ) দুলাল মিয়া জানান, ওই হত্যা মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে।