কে হচ্ছেন ডেপুটি স্পিকার?

দৈনিক এই আমার দেশ দৈনিক এই আমার দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদের স্পিকার যে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীই হচ্ছেন এটা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। তবে ডেপুটি স্পিকার কে হচ্ছেন তা নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। দশম জাতীয় সংসদে ডেপুটি স্পিকার ছিলেন অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়া। তিনি ডেপুটি স্পিকার থাকবেন কি না তা নিশ্চিত নয়। দশম জাতীয় সংসদে স্পিকারের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক ছিল না বলেই্ বিভিন্ন মহল মনে করে। এজন্য ডেপুটি স্পিকার পদে হয়তো পরিবর্তন আনার চিন্তাভাবনা চলছে।

আগামী ২৯ জানুয়ারি কিংবা ৩০ জানুয়ারি সকালে ডেপুটি স্পিকার এবং হুইপ বিষয়ে আওয়ামী লীগ সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানা গেছে। ডেপুটি স্পিকার নিয়ে তিন রকমের চিন্তাভাবনা কাজ করছে বলে জানিয়েছে আওয়ামী লীগের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র।

প্রথমত; বর্তমান ডেপুটি স্পিকারকেই বহাল রাখা। তবে এটার ব্যাপারে ভিন্নমত রয়েছে। স্বয়ং স্পিকারই এ ব্যাপারে আগ্রহী নন বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

দ্বিতীয়ত; অপেক্ষাকৃত তরুণ কাউকে ডেপুটি স্পিকার পদে নিয়ে আসা। এক্ষেত্রে বেশ কিছু নাম আলোচনায় এসেছে। এক্ষেত্রে জাতীয় সংসদের গত মেয়াদে হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা ইকবালুর রহিমের নাম আলোচনায় এসেছে। মাহবুব আরা গিনির ব্যাপারেও কথাবার্তা চলছে। তিনি গাইবান্ধা থেকে নির্বাচিত এবং গত সংসদের হুইপ ছিলেন। অপেক্ষাকৃত আরও তরুণ ব্যারিস্টার নাহিম রাজ্জাককে নিয়েও আলোচনা হচ্ছে।

তবে আওয়ামী লীগের একজন দায়িত্বশীল নেতা বলেছেন যে, ডেপুটি স্পিকার যে স্পিকারের চেয়ে বয়সে ছোট হতে হবে এমন কোন কথা নেই। নবম জাতীয় সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর অধীনে ডেপুটি স্পিকার ছিলেন শওকত আলী। তিনি প্রবীণ একজন রাজনীতিবিদ ছিলেন। এরপরে ডেপুটি স্পিকার হয়েছেন অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি। তিনিও শিরীন শারমিন চৌধুরীর চেয়ে বয়সে অনেক বড়। বয়সের সঙ্গে স্পিকার-ডেপুটি স্পিকার পদের সম্পর্ক নেই বলে আওয়ামী লীগের ঐ নেতা জানান।

তৃতীয়ত; আরও একটি বিকল্প নিয়ে ভাবছে বিএনপি। আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল একটি সূত্র বলছে যে, যেহেতু সংসদে বিরোধী দলের সংখ্যা খুবই কম এবং জাতীয় পার্টি বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছে। জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে কাউকে ডেপুটি স্পিকার পদে মনোনয়ন দেয়ার চিন্তাভাবনা চলছে। সংসদীয় গণতন্ত্রকে কার্যকর এবং অর্থবহ করার জন্য বিরোধী দল থেকেও ডেপুটি স্পিকার করার চিন্তাভাবনা আওয়ামী লীগের মধ্যে বহুদিন ধরে ছিল। এবার সেই চিন্তা বাস্তবায়ন হয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়।