কালীগঞ্জে ওয়ার্কার্স পার্টি নেতা আব্দুল হামিদের মৃত্যুবার্ষিকী পালন

বিশেষ প্রতিবেদক:: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক ঝিনাইদহ জেলা সম্পাদক কমরেড আ: হামিদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। রোববার যথাযোগ্য মর্যাদায় মধ্যে দিয়ে তার মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে ঝিনাইদহ জেলা ও কালীগঞ্জ উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টি বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করে। এসব কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বিকাল ৪ টায় মরহুম নেতার গ্রামের বাড়ী কালীগঞ্জ উপজেলার কামারাইল গ্রামে গমন, পরিবারের সদস্যদের সাথে মতবিনিময়, মাজারে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন, মাজার জিয়ারত, মিলাদ মাহফিল ও স্মরণসভা।

মরহুম নেতার মাজারের পাশে কামারাইল ঈদগাঁ মাঠে পার্টির জেলা সভাপতি মোফাজ্জেল হোসেন মঞ্জুর সভাপতিত্বে ও উপজেলা সাধারন সম্পাদাক এবং জেলা নেতা রেজাউল ইসলামের পরিচালনায় স্মরণসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পার্টির কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড ইকবাল কবির জাহিদ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সদস্য কমরেড জাকির হোসেন হবি। আরো বক্তব্য রাখেন, কালীগঞ্জ উপজেলা সভাপতি কমরেড আমির হামজা বাবলু ও পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন মরহুম নেতার ভাগ্নে কালীগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন। এছাড়া স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা নেতা ও নারি মুক্তি সংসদ নেতা কমরেড সখিনা বেগম দিপ্তী ও পার্টির ঝিনাইদহ জেলা এবং কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীবৃন্দ।

প্রয়াত নেতা কমরেড আ: হামিদ ষাটের দশকে অবিভক্ত ছাত্র ইউনিয়নের মাধ্যমে রাজনিতী জীবন শুরু করেন। অবিভক্ত ন্যাপ ভাষাণির কালীগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছিলেন। জীবদ্দশায় তিনি কালীগঞ্জ উপজেলা ও ঝিনাইদহ জেলায় বহু আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

স্মরণসভায় বক্তগণ সাধারন মানুষের পক্ষে প্রয়াত নেতার অসমাপ্ত সংগ্রামকে এগিয়ে নেয়ার উপর গুরুত্ব দিয়ে বক্তব্য রাখেন। এ্যাজমা, হৃদরোগ ও কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে কমরেড আ: হামিদ ২০১৬ সালের ১৭ মার্চ মৃত্যুবরণ করেন। প্রয়াত নেতা আ: হামিদ মৃত্যুর পূর্বমুহুর্ত পর্যন্ত ওয়ার্কার্স পার্টির ঝিনাইদহ জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য ছিলেন।