ইবিতে মোহনা টিভি’র ১০ম জন্মদিন উদযাপন

মোঃ সাজ্জাদ হোসেন (ইবি) ঃ মোহনা টিভি’র ১০ম জন্মদিন ইবি মোহনা টিভি দর্শক ফোরামের র্যালি, কেক কাটা ও আলোচনা সভা মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় মোহনা টিভি দর্শক ফোরামের আয়োজনে আজ (১১ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের টি.এস.সি.সি’র ১১৬ নম্বর কক্ষে কেক কাটা এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠান হয়।

সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানিয়ে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, মোহনা টেলিভিশন বাংলাদেশের বেসরকারী প্রাইভেট টিভিচ্যানেলগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রসিদ্ধ টেলিভিশন চ্যানেল হিসাবে ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মোহনা টেলিভিশনের সকল কর্মকা- মহান মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অমর অবিনাশী আদর্শে পরিচালিত হয়। মোহনা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান মাননীয় সংসদ-সদস্য কামাল আহমেদ মজুমদারের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে তিনি আরও বলেন, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় পরিবার আগেও মোহনা টেলিভিশনের সাথে ছিল, এখনও আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, মোহনা টেলিভিশনটি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে পরিচালিত হচ্ছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় চ্যানেলটি সম্পৃক্ত। চ্যানেলটি বাংলাদেশের চলমান ঘটনাগুলো বস্তুনিষ্ঠতার সঙ্গে পরিবেশন করে।

ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বাঙালি সংস্কৃতির ভাবধারা, অসাম্প্রদায়িক বোধ – এসবকে একত্রিত করে মোহনা টেলিভিশন তার অসীম মোহনীয় শক্তি দিয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ, টক-শো, নাটক এবং সঙ্গীতানুষ্ঠানসহ নানান বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে খুবই দ্রুত সময়ের মধ্যে বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় চ্যানেলে পরিণত হয়েছে।

কেক কাটা এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে ইন্সটিটিউট অব ইসলামিক এডুকেশন এন্ড রিসার্চ (আইআইইআর)-এর পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাঃ মেহের আলী, ছাত্র-উপদেষ্টা ও প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন, মোহনা টিভি’র কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মিলন খন্দকার, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় সাংবাদিকবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিন উপলক্ষ্যে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফ, ছাত্র-উপদেষ্টা ও প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন, প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ আলীমুজ্জামান (টুটুল), অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) নওয়াব আলী খান প্রমুখ র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন।